banglanewspaper

কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবির হোটেলে সোমালিয়ান জঙ্গিগোষ্ঠীর হামলায় অন্তত ২১ জন নিহত হয়েছেন বলে দেশটির সরকার জানিয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার বিবিসিতে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এ কথা জানা যায়।

গত মঙ্গলবার রাজধানীর বিলাসবহুল হোটেল ডাসিটডিটু ও সংলগ্ন বাণিজ্যিক ভবনে ওই হামলা চালায় সোমালিয়াভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আল-শাবাব।

বিবিসি জানায়, এ ঘটনায় আহত ২৮ ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ছাড়া কেনিয়ার রেড ক্রস শাখা জানায়, এখন পর্যন্ত ১৯ ব্যক্তি নিখোঁজ রয়েছেন।

আক্রমণকারী আল-শাবাব গোষ্ঠী হামলার সঙ্গে নিজেদের সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করেছে। হামলার পর প্রায় ১৯ ঘণ্টা নিরাপত্তা অভিযান পরিচালনা করে কেনিয়ার আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। 

দেশটির প্রেসিডেন্ট উহুরু কেনিয়াত্তা জানান, অভিযানে পাঁচ জিহাদি নিহত হয়েছেন।   

২০১১ সালের অক্টোবরে সোমালিয়ার জিহাদি গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য সে দেশে নিজেদের সেনাবাহিনী পাঠানোর পর থেকেই জঙ্গিদের হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয় কেনিয়া।

হামলার পর টেলিভিশনে দেওয়া এক বার্তায় উহুরু কেনিয়াত্তা বলেন, ‘এ ঘৃণ্য হামলার অর্থ জোগান থেকে শুরু করে পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নের সঙ্গে যারা জড়িত, তাদের প্রত্যেককে বিচারের আওতায় আনা হবে।’

এদিকে এ হামলার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে গতকাল বুধবার দুই ব্যক্তিকে আটক করা হয় বলে সংবাদ সংস্থা এএফপি জানিয়েছে।

আল-শাবাবের বরাত দিয়ে সংবাদ সংস্থার রয়টার্স জানায়, অবিভক্ত জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘স্বীকৃতি’ দেওয়ার প্রতিক্রিয়া হিসেবে এ হামলা চালানো হয়েছে।

গত বছর ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে সেখানে নিজেদের দূতাবাস সরিয়ে নেন। ওই উদ্যোগ বিশ্বব্যাপী কঠোর সমালোচনার মুখে পড়ে।