banglanewspaper

খুলনা টাইটান্স। যেনো চৈত্রের দীর্ঘ খরায় ফেটে চৌচির হয়ে যাওয়া ফসলের ক্ষেত। বিপিএলের চলতি আসরে টানা চার ম্যাচ হেরে পয়েন্ট টেবিলের তলানি পড়ে থাকা দলটি অবশেষে জয়ের দেখা পেল। সমর্থকদের শুকিয়ে কাঠ হয়ে যাওয়া হৃদয়ের জন্য এ জয় যেনো এক পসলা বৃষ্টি।

তাউজুল মাহমুদুল্লাহ’র বোলিংয়ে রাজশাহীর বিপক্ষে ২৫ রানের জয় তুলে নিয়েছে খুলনা।

অবশ্য ব্যাটিংটা আজও একেবারেই ভালো হয়নি। মাত্র ১২৯ রানের পুঁজি নিয়ে লড়াই করতে হয়েছে বোলারদের। শুরুতেই শূন্য রানে ওপেনার ল্যারি ইভান্সকে বিদায় করে দারুণ কিছু আভাস দিয়েছিলেন জুনায়েদ খান। এরপর মাত্র ৭ রানে মুমিনুলকে ফেরান মাহমুদুল্লাহ। অধিনায়ক মেহেদী মিরাজ কিছুটা ভয় ছড়ালেও তার ইনিংসটিকে বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে দেননি তাইজুল ইসলাম।

সৌম্য সরকার আজও নিরাস করেছেন। মূলত তাইজুল ইসলাম আর মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের কিপটে আর শিকারি বোলিংয়ে দিশেহারা রাজশাহী। নিজের কোটার চার ওভারে মাত্র ১০ রান দিয়ে ৩টি উইকেট তুলে নেন তাইজুল। আর অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ ৪ ওভারে দেন ১২ রান। শিকার করেন ২ উইকেট। আর রাজশাহী কিংস ১০ উইকেট হারিয়ে করে ১০৩ রান।

এরআগে জয়ের জন্য মরিয়া খুলনা টাইটন্স আজো কঠিন টার্গেট দাঁড় করাতে পারেনি। রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে তারা করে ১২৮ রান।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই নিয়মিত বিতরিতে উইকেট খোয়াতে থাকে খুলনা টাইটান্স। একদিকে যেমন বল খরচ করেছেন অন্যদিকে ততটাই ধীরগতিতে তুলেছেন রান। সপ্তম উইকেটে নামা আরিফুল হক করেন ২৭ বলে সর্বোচ্চ ২৬ রান।