banglanewspaper

আজ মঙ্গলবার ওড়িশা যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেখানে খুরদা-বালাংগীর রেল লাইন উদ্বোধন করবেন তিনি।

এজন্য কঠোর নিরাপত্তায় ঢেকে দেওয়া হয়েছে সম্পূর্ণ এলাকাটিকে।

প্রধানমন্ত্রীর হেলকপ্টার কোন জায়গায় অবতরণ করবে, সেটিও নির্দিষ্টি হয়ে গেছে। তার জন্য চলছে পুরোদমে কাজ।

ভারতীয় গণমাধ্যম জিনিউজের খবরে বলা হয়, বালাংগীর স্টেশনের বিস্তীর্ণ জায়গায় প্রায় শ’খানেক গাছ কাটা হচ্ছে। জঙ্গল পরিষ্কার করে ওখানেই বানানো হচ্ছে হেলিপ্যাড।

বালাংগীরের বিভাগীয় বন দপ্তরের কর্মকর্তা সমীর সতপথি অভিযোগ করেন, বন দফতরের অনুমতি ছাড়াই গাছ কাটা হচ্ছে। বাধা দিতে গেলে জানানো হয় উপর মহলের অনুমতিতেই গাছ কাটা হচ্ছে।

সমীরবাবু দাবি করেন, এক একটি গাছের দাম হবে প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা।

পূর্ব উপকূলবর্তী রেলওয়ের তরফে জানানো হয়েছে, ওই জায়গা রেলের। যদিও ওই কাজের দেখভাল করছে পূর্ত দফতর। পূর্ত দফতরের কর্মকর্তাদের দাবি, গাছ কাটা বিষয়ে তাদের কাছে কোনো তথ্য নেই।

বালাংগীরের এসপি- কে শিবা সুব্রমানির যুক্তি, প্রধানমন্ত্রীর হেলকপ্টার অবতরণের জন্য ফাঁকা জায়গা না থাকায় জঙ্গল পরিষ্কার করা হচ্ছে।

জানা গেছে, গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে স্থানীয় বাসিন্দাদের।