banglanewspaper

বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য ৪০টি ব্রডগেজ লোকোমোটিভ ইঞ্জিন ক্রয় করবে সরকার। সোমবার রেলভবনে এ-সংক্রান্ত ইউএসএ’র নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স প্রগ্রেস রেলের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

চুক্তিতে বাংলাদেশের পক্ষে স্বাক্ষর করেন রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (আরএস) মো. শাসসুজ্জামান। আর আমেরিকান কোম্পানি প্রগ্রেস রেলের পক্ষে চুক্তিতে সই করেন সিনিয়র ভাইস-প্রেসিডেন্ট প্যাট্রিক ও ডনেল।

এ সময় সদ্য দায়িত্ব নেয়া রেলমন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, রেলকে যুগোপযোগী উন্নয়নে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হবে। মানুষকে রেলের মাধ্যমে কাঙ্ক্ষিত সেবা দেয়ার জন্য সর্বোত্তম চেষ্টা করা হবে। ইঞ্জিন পাওয়া শুরু করলে অধিক পরিমাণে বিভিন্ন রুটে ট্রেন চালানো সম্ভব হবে এবং এর মাধ্যমে বেশি করে রাজস্ব আহরণ করা যাবে।

চুক্তি অনুযায়ী, ২৪ থেকে ৩৬ মাসের মধ্যে সকল ইঞ্জিন সরবরাহ করবে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান। এডিবির অর্থায়নে   লোকোমোটিভগুলো ক্রয় করা হচ্ছে। বাংলাদেশি টাকায় চুক্তি মূল্য ১১২৩ কোটি ৫ লাখ টাকা।

বর্তমানে বাংলাদেশ রেলওয়েতে ৯৪টি ব্রডগেজ লোকোমোটিভ রয়েছে, যার মধ্যে ৫৫টির অথনৈতিক আয়ুষ্কাল (২০ বছর হিসাবে) শেষ হয়ে গেছে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোফাজ্জেল হোসেন, মহাপরিচালক মো. কাজী রফিকুল আলম, নির্মাণকারী  প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।