banglanewspaper

নুরকাদের সরকার ইমরান, নীলফামারী: ডোমারে রাস্তার সরকারী গাছ বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার(১০ জানুয়ারী) বিক্রিত গাছের মধ্যে কয়েকটি গাছের ডালপালা আটক করে জব্দ করেছে বন বিভাগ।

ডোমার উপজেলার হরিণচড়া ইউনিয়নের বটতলী বাজার হতে বুড়ীর হাট পর্যন্ত বরেন্দ্র উন্নয়ন কতৃপক্ষের তত্বাবধানে ও বন বিভাগের বাস্তবায়নে স্থানীয় এক শত ২০জন সদস্যের সমিতির মাধ্যমে গত ২০১১ সালে রাস্তার দুইধারে বিভিন্ন প্রজাতির গাছ লাগানো হয়।

লাগানো ওই গাছগুলোর মধ্যে থেকে কোটপাড়া এলাকায়  ৮জানুয়ারী ২০টি গাছ বিক্রি করে দেন। ওই এলাকায় গিয়ে জানা গেছে,স্থানীয়ভাবে নামকির্ত্তন করার জন্য গাছগুলো ওই ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার ফজলে রহমানের কাছে কিনে নিয়েছে আয়োজক কমিটি।

খবর পেয়ে ডোমার রেঞ্জের বিট অফিসার আতাউর রহমান কাটা গাছগুলো উদ্ধার করে বন বিভাগে নিয়ে আসেন। এ ব্যাপারে সাবেক মেম্বার ফজলে রহমান জানান, আমি কোন গাছ বিক্রি করি নাই।সমিতির সদস্যরাই মরা ও ঝড়েপড়া গাছগুলো কেটে নিয়েছে।

এ ব্যাপারে বিট অফিসার আতাউর রহমান জানান,আমাকে সমিতির কেউ গাছ কাটার কথা বলেনি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে গাছের কিছু অংশ উদ্ধার করা হয়েছে। তথ্য প্রমানের ভিত্তিতে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

হরিনচড়া ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম জানান, `বিষয়টি শুনেছি ওই গ্রামে নামকির্ত্তন করার জন্য সমিতির সদস্যরা মরা এবং ঝড়েপড়া গাছগুলোর ডালপালা কেটেছে।বন বিভাগকে হয়তো তারা জানায়নি তাই কিছু গাছ বন বিভাগে নিয়ে গেছে।'