banglanewspaper

চুক্তি মূল্যের ভিত্তিতে তিনি ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দামী ফুটবলার। মানে চুক্তি মূল্যে কিলিয়ান এমবাপের চেয়েও একজন দামী ফুটবলার আছেন। তিনি তারই ক্লাব সতীর্থ নেইমার। কিন্তু বাজার মূল্যের ভিত্তিতে? নেইমারকে পেছনে ফেলে সবচেয়ে দামী এমবাপে।

পিএসজির ফরাসি বিস্ময়বালকের বর্তমান বাজারমূল্য ২১৮.৫ মিলিয়ন ইউরো। বাংলাদেশি মুদ্রায় ২০৯১ কোটি ৬৫ লাখ ৫১ হাজার ৭৯১ টাকা মাত্র। চুক্তি মূল্যের চেয়েও ৩৮.৫ মিলিয়ন ইউরো বেশি! তার চুক্তি মূল্য ১৮০ মিলিয়ন ইউরো।

এমবাপের সর্বোচ্চ বাজার মূল্য হওয়ায় অবশ্য বিস্ময়ের কিছু নেই। প্রতিভা-দক্ষতায় এরই মধ্যে বিশ্ব জয় করে ফেলেছেন। তাকে ভাবা হচ্ছে আগামীকার মহাতারকা। বিস্ময়কর হলো গত এদ দশকেরও বেশি সময় ধরে বিশ্ব ফুটবলকে শাসন করা লিওনেল মেসি ও ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো সেরা পাঁচেও নেই!

চুক্তি মূল্যে পিএসজির ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার সবার উপরে। কিন্তু বাজার মূল্যে তিনি বর্তমানে ৩ নম্বরে। মানে ক্লাব সতীর্থ নেইমারের সঙ্গে নয়, এক-এর লড়াইয়ে এমবাপের মূল দ্বৈরথটা হয়েছে হ্যারি কেনের সঙ্গে। টটেনহামের ইংলিশ ফরোয়ার্ডের বর্তমান বাজার মূল্য ২০০.৩ মিলিয়ন ইউরো। অর্থাৎ হ্যারি কেনের চেয়ে এমবাপের বাজার মূল্য ১৮.২ মিলিয়ন ইউরো বেশি।

প্রতিভা, বয়স, পারফরম্যান্স, ভবিষ্যত সম্ভাবনা-এসব বিষয় বিবেচনা করেই খেলোয়াড়দের বাজার মূল্য নিরূপণ করে থাকে গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিআইইএস। প্রতিষ্ঠানটির সর্বশেষ গবেষণায় উঠে এসেছে চুক্তি মূল্যে সবার উপরে থাকলেও নেইমার বাজার মূল্যে ৩ নম্বরে। তার বর্তমান বাজার মূল্য ১৯৭.১ ইউরো।

তালিকার ৪ নম্বর নামটিও বিস্ময়কর। তিনি ম্যানচেস্টার সিটির ইংলিশ ফরোয়ার্ড রাহিম স্টার্লিং। তার বর্তমান বাজার মূল্য ১৮৫.৮ মিলিয়ন ইউরো। ১৮৪.৩ মিলিয়ন ইউরো নিয়ে তালিকার ৫ নম্বরে আছেন লিভারপুলের মিশরীয় ফরোয়ার্ড মোহামেদ সালাহ।

৫ বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসির জায়গা হয়েছে তালিকার ৭ নম্বরে। বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন সুপারস্টারের বর্তমান বাজারমূল্য ১৭১.১ মিলিয়ন ইউরো। মজার ব্যাপার হলো, বাজার মূল্যে বর্তমানে মেসির চেয়ে এগিয়ে তারই স্বদেশি পাওলো দিবালা। জুভেন্টাসের এই আর্জেন্টাইন তারকার বর্তমান বাজার মূল্য ১৭১.৮ মিলিয়ন ইউরো।

মেসি ৭ নম্বরে থাকায় মেসি-ভক্তরা যদি কষ্ট পেয়ে থাকেন, তাহলে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ভক্তদের কষ্টটা দ্বিগুণ হওয়ার কথা। কারণ, সেরা পাঁচে তো নয়ই, জুভেন্টাসের পর্তুগিজ সুপারসপার সেরা দশেও নেই। ৩৪ ছুঁইছুঁই রোনালদো আছেন ১৯ নম্বরে! তার বর্তমান বাজার মূল্য মাত্র ১২৭.২ মিলিয়ন ইউরো!

সর্বোচ্চ বাজার মূল্যের ভিত্তিতে মোট ২৭ জন ফুটবলারকে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। এই তালিকা ঘেটে দেখা দামী খেলোয়াড়ের দৌড়ে ব্রাজিল, ফ্রান্স, ইংল্যান্ডের জয়জয়কার। সর্বোচ্চ দামী ২৭ জনের মধ্যে ৬ জনই ব্রাজিলের। ৫ জন করে আছেন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স ও ইংল্যান্ডের।

কাকতালীয়ভাবে মাঠের দ্বৈরথের মতো এখানেও মেসি-রোনালদোর একটা মিল আছে। মেসির দেশ আর্জেন্টিনা এবং রোনালদোর দেশ পর্তুগাল-দুই দেশ থেকেই তালিকায় স্থান পেয়েছেন সমান দুজন করে। বেলজিয়ামের দুজন আছেন তালিকা। এছাড়া একজন করে খেলোয়াড় আছেন মিশর, সেনেগাল, জার্মানি, ইতালি ও উরুগয়ের। ক্লাব ফুটবলে বিশ্ব রাজত্ব করা স্পেনের কেউ নেই।

উল্লেখ্য, মোট ১১টি দেশের খেলোয়াড়েরা জায়গা পেয়েছেন তালিকায়।