banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: ক্যাবল ব্যবসা দখলকে কেন্দ্র করে গাজীপুরের শ্রীপুরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আট জন আহত হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যার পর উপজেলার গড়গড়িয়া নতুন বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এছাড়া একই দিন দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের ভেতর হামলা, ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। 

ক্যাবল ব্যবসা নিয়ে সংঘর্ষে আহতরা হলেন, সাবেক শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য সিরাজুল ইসলাম, নাসির উদ্দিন, ফারুক, রনি আহমেদ, হাজী জামাল, খলিলুর রহমান, আশরাফুল ইসলাম, মোজাম্মেল হক। 

স্থানীয়রা জানান, হাজী জামাল ও সিরাজ উদ্দিন নামে দুই ক্যবল ব্যবয়াসীর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে একক ভাবে ব্যবসা দখলের জেরে দ্বন্দ্ব চলছিল। নিজেদের আধিপত্য জানান দিতে সোমবার সন্ধ্যার পর নতুন বাজার এলাকায় দুই পক্ষের লোকজন অবস্থান করছিল। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে সংর্ঘষ বাধে। এতে লাঠি, দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে আটজন আহত হন।    

আহত সিরাজুলের মেয়ে অভিযোগ করে বলেন, জামাল হাজী ও তার লোকজন তার বাবা ও  স্বজনদের কুপিয়ে আহত করেছেন।

শ্রীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাবেদুল ইসলাম বলেন,‘গড়গড়িয়া নতুন বাজারে সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে অফিসার পাঠানো হয়েছিল। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে’।

এর আগে সোমবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের ভেতরে স্থায়ী ফাস্টফুট, কফিশপে ভাংচুর চালানোর খবর পাওয়া গেছে। প্রবেশ ফটকে এক কর্মীকে মারধর করা হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। পার্কের ভেতরের বিভিন্ন দোকানপাটের ব্যবসায় দখল নিতেই এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানিয়েছেন পার্কের এক ইজারাদার।

পার্কের ভেতর এস এম এন্টারপ্রাইজের মালিকানাধীন কফি শপের বিক্রেতা আমিনুল ইসলাম বলেন, ১২টার দিকে ২০/২৫জন পার্কের ভেতর প্রবেশ করে কফিশপে ভাংচুর করে। পরে তালা ঝুলিয়ে দেয়। পরবর্তীতে মেসার্স নিরব এন্টারপ্রাইজের মালিকানাধীন চটপটি হাউজে ভাংচুর চালায় তারা। এ সময় দোকানটির ৫টি চেয়ার ভাংচুর করা হয়। চটপটি হাউজের বিক্রেতা জানি বলেন, যুবকেরা এসে চেয়ার ভাংচুর করে বলে গেছে ’ এখানে দোকানগুলো ছেড়ে দিতে হবে। নতুন করে আমরা এগুলো পরিচালনা করবো’। 

প্রধান ফটকের কর্মী সোহেল জানান, মোটরসাইকেল নিয়ে প্রবেশের সময় বাধা দিলে তাকে ধরে নিয়ে মারধর করা হয়। তিনি জানান, ভেতরের কয়েকটি দোকানের ব্যবসা দখল করতেই অজ্ঞাত ব্যক্তিরা ভেতরে প্রবেশ করে ভাংচুর চালান।

পার্কে দায়িত্ব পালন করা টুরিস্ট পুলিশের পরিদর্শক শরিফুল ইসলাম বলেন, কিছু যুবক মোটরসাইকেল নিয়ে দলবলে ভেতরে প্রবেশ করে কফিশপে এসে উত্তেজীত হয়ে কথা বলছিল। আমরা তাদের বাইরে বের হয়ে যেতে বলেছি। তারা বাইরে চলে গিয়েছিল। পরে কোথাও এসে হামলা চালিয়েছে কি না তা জানি না। এ ধরনের অভিযোগ পাইনি।

পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম দুপুরে বলেন, আমি  জরুরী মিটিংয়ে ঢাকায় আছি। পার্কের ভেতরে স্থানীয় নেতাদের প্রবেশের খবর পেয়েছি। এ বিষয়ে তেমন বিস্তারিত বলা যাচ্ছেনা।