banglanewspaper

একজন অন্তঃসত্ত্বা নারী। আর কিছুদিন পরেই সন্তান জন্ম দেয়ার কথা। কিন্তু তার পেটের সন্তান যে স্বাভাবিকভাবে জন্ম নিতে পারলো না। বর্বর এক ব্যক্তির ছোড়া তীর প্রাণ কেড়ে নিয়েছে তার। তবে মা মরে গেলেও বেঁচে গেছে পেটের শিশু।

সোমবার মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব লন্ডনের ইলফোর্ড এলাকায়। নিহত ওই নারী ভারতীয় বংশোদ্ভূত যুক্তরাজ্যের নাগরিক। দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ওই নারী তীরবিদ্ধ হওয়ার পর সিজার করে শিশুটিকে বের করা হয়। তবে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসা চললেও শিশুটি বাঁচবে কি-না তা এখনই বলা যাচ্ছে না।

এ ঘটনায় ব্রিটিশ মেট্রোপলিটন পুলিশ রামানোজ নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ বলছে, রামানোজ নিহত ৩৫ বছর বয়সী ওই নারীর সাবেক স্বামী। হঠাৎ তীর দিয়ে হামলা করায় গুরতর আহত ওই নারীকে হাসপাতালে ভর্তি করানোর পর মৃত্যু হয়।

নিহত ওই নারীর নাম দেবী আনমাথালেগাদো। অবশ্য ওই এলাকায় তিনি সানা মোহাম্মদ নামে পরিচিত। সাত বছর আগে ইমতিয়াজ মোহাম্মদ নামে এক ব্যক্তিকে বিয়ে করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন তিনি। আগের স্বামীর তিনটি ও বর্তমান স্বামীর দুটিসহ মোট পাঁচ সন্তান রয়েছে তার। 

সানা মোহাম্মদের স্বামী ইমতিয়াজ বলেন, ঘটনার সময় তিনি বাড়িতে ছিলেন। হঠাৎই দেখেন ওই হামলাকারী বেশ কিছু তীর ও ধনূক নিয়ে তাদের বাড়ির কাছে দাঁড়িয়ে আছেন। সঙ্গে সঙ্গে তিনি তার স্ত্রী- সন্তানদের সতর্ক করেন। কিন্তু তারপরও শেষরক্ষা হয়নি।