banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি : গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর মুক্তমঞ্চের পাশে পাবলিক টয়লেটে প্রকাশ্যে মাদক বিক্রি করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা। বাজারের মধ্যস্থানে ও পুলিশের নাকের ডগায় এমন মাদক বিক্রি এবং সেবনে তারা  হতভাগ হয়েছেন। এ ব্যাপারে কেউ প্রতিবাদ করতে এগিয়ে আসলে নানা হয়রানীর শিকার হয় বলেও জানায় তারা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন মাদকসেবনকারী জানান, আগে গাঁজা খাইতাম। এখন ছেড়ে দিছি। পাপলিক টয়লেটের ওখানে মাদক পাই বলে সহজেই আমরা কিনি।

স্থানীয়রা জানান , পৌর মুক্তমঞ্চ সংলগ্ন দক্ষিণ পাশে পৌরসভা কর্তৃক জনগণের সুবিধায় কয়েক লাখ টাকা ব্যায়ে পাবলিক টয়লেট নির্মাণ করা হয়। এর কিছুদিন পার হতে না হতেই ওখানে মাদকসেবীরা আস্তানা করে। সেখানে রয়েছে ফুল দ্বারা তৈরী একটি আসরস্থল। যেখানে সন্ধ্যার পরপরই সারা রাতের জন্য জমে মাদকের আসর। তাছাড়াও এ বাজারের আরো কয়েকটি স্থানে প্রকাশ্যে মাদক বিক্রি হয়ে থাকে বলেও জানায় তারা।

স্থানীয় দোকানী ইমরান মিয়া জানান, প্রতিদিন বিকেল বেলা থেকে সারারাত এখানে গাঁজা বিক্রি হয়। বিভিন্ন মাদকসেবীরা ওখানে এসে মাদক সেবন করে নানা ধরনের অশ্লিল গালিগালাজ করে। এতে আমরা শান্তিতে ব্যবসা করতে পারছিনা। আমরা কিছু বলতে গেলে  মানহানি মামলা করবে বলে হুমকি দেয়।

কাঠ ব্যবসায়ী আঃ ছালাম জানান, পাবলিক টয়লেটে গাঁজাসহ বিভিন্ন অপকর্ম হয়ে থাকে। গাঁজা সেবনকারীর এখানে প্রকাশ্যে গাঁজা কিনে আসার জমাচ্ছে। এর ভিতরেই ফুল দিয়ে সাজানো রয়েছে আসর। সেখানেই বসে গাঁজা সেবন করে তারা। প্রতিবাদ করতে গেলে মান ইজ্জত মারবে বলে হুমকি দেয়। তাই ভয়ে কেউ কোন কথা বলতে চায়না। আমরা এ অবস্থা হতে মুক্তি চাই। 

এখানে মাদক বিক্রির কথা অস্বিকার করে ওই পাবলিক টয়লেটের দায়িত্বে থাকা শাহানাজ পুলি ওরফে হৃদয়ের মা জানান, আপনে আবার কে ? আমি গাঁজা বিক্রি করিনা।  ক্যামেরার সামনে কথা বলতে পারবেননা বলেও জানায় সে।

এ বিষয়ে শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাবেদুল ইসলাম জানান, মাদক নির্মূলে বর্তমান সরকার আপোষহীন। আমি এখানে এসে প্রত্যেক স্কুল/কলেজে মাদকের কুফল সম্পর্কে সেমিনার করছি। বাজারের পাবলিক টয়লেটে মাদক ব্যবসা সম্পর্কে খোঁজ নিয়ে কঠোর অভিযান পরিচালনা করা হবে।