banglanewspaper

আমি নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের বড় ছেলে। হারিয়েছি জীবনে অনেক সোনালী সময়। চুরি হয়েছে অবেলায় অনেক স্বপ্ন। বন্ধুরা যখন সিজিপিএ আর ক্যারিয়ার নিয়ে ব্যাস্ত কিংবা প্রেমিকার হাত ধরে গাছের নিচে প্রেমের জাল বুনছে, তখন আমি ঢাল নেই, তলোয়ার নেই যেন নিধিরাম সর্দার। বসে বসে লিখি নিউজ, মাঝে মধ্যে হয়ে যাই ফিউজ।

একটি বিএস.সি ফিশারিজ(সম্মান)  ডিগ্রীর জন্য প্রতি প্রতিনিয়ত লড়াই করছি। আমার মিশন এবং ভিশন ছিলো  প্রকৃচি (প্রকৌশলী,কৃষিবিদ, চিকিৎসক)। বিএসসি ফিশারিজ পড়ার সুযোগটা পেয়ে মনে করেছিলাম তিনটার একটা হয়তো হতে পারবো। কিন্তু এখন আমি হয়েছি কি ইলেক্ট্রনিক & প্রিন্ট মিডিয়ার ক্যাম্পাস সংবাদদাতা। যেটা নিজের নিজের খেয়ে বনের মোষ তাড়ানো ছাড়া আর কিছুই না।

আমার মনে পরছে ২০১৪ সালের কথা, যখন আমি আমার আব্বার সাথে দেখা করতে যাই, কৃষি সম্প্রসারণ  অধিদপ্তর, নরসিংদী এর উপপরিচালক কৃষিবিদ লতাফত হোসেন স্যারের সাথে। তখন তিনি আমাকে বলেছিলেন, চাকুরীর সুবাদে আমি চীনের মহাপ্রাচীরসহ বিশ্বের অনেক দেশ ভ্রমনের কাহিনী।

আর উনি একটি ডায়েরী উপহার দিয়ে তাতে ইংরেজীতে লিখেছিলেন ভারতের প্রয়াত রাষ্ট্রপতি মিসাইল ম্যান খ্যাত ড.এপিজে আব্দুল কালামের সেই বিখ্যাত উক্তি "Difficulties in your life do not come to destroy you,but to help you realize your hidden potential & power, let the difficulties know that you too difficult. "অর্থাৎ জীবনে কঠিন বাধাসমূহ আসে তোমাকে ধ্বংস করতে নয়, বরং আসে তোমার ভেতর লুকানো অমিত শক্তি ও সম্ভাবনাকে অনুধাবন করাতে, বাধা সমূহকে দেখাও তুমিও কম কঠিন নও। "

কৃষিবিদ লতাফত হোসেন স্যারের টেবিলে বিটি বেগুন এর একটা বই দেখে কৌতুহল বশত জিজ্ঞাসা করলাম -আপনারা এটা কৃষকদের চাষাবাদ করতে বলেন, আর পরিবেশ বাদীরা এর বিরোধীতা করে।তখন স্যারকে এর পক্ষে-বিপক্ষে বললাম। স্যার আমার কৌতুহল দেখে আমার আব্বাকে বললেন-পোষ্টমাষ্টার সাব ছেলেকে কৃষি নিয়ে পড়াবেন।

কৃষিবিদ লতাফত হোসেন স্যারের মত আলোকিত নরসিংদীর কয়েকজন সফল  কৃষিবিদ এর মধ্যে বাকৃবির সাবেক ছাত্রনেতা শাহাদাত হোসেন বিপ্লব, শেকৃবির সাবেক ছাত্রনেতা আ.ফ.ম.মাহাবুব হোসেন, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা রেজাউল করিম শাহিন, বিজ্ঞানী ড.মাহমুদুল হাসান (ফিরুজ) স্যারদের সাফল্যে অনুপ্রাণিত হয়ে ভর্তি হয়েছিলাম ফিশারিজে। আমিও কৃষিবিদ হবো।

কিন্তু আমি আমার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য পূরণে করতেছি ভিসি নিয়োগসহ সাতদফা আন্দোলন। মেঘে অনেক অনেক বেলা কেটে যায়। কেউ কি বলে দিতে পারবে দিতে পারবে কবে আসবে আমার বর্ণিল সময়? প্রেমিকার কোলে শুয়ে মাথায় বিলি করে দেওয়া স্বপ্নিল  সময়? আলোকিত জ্ঞানীদের মাঝে নতুন জীবনের হাতছানি।

হয়তো হেরে গেছি কিন্তু জেতার ইচ্ছাটা এখনো হারায়নি!

 

লেখক

এস.এম.আল-ফাহাদ

(বিএসসি ফিশারিজ অনার্স, লেভেল-১,সেমি-১)

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়,জামালপুর।

(এ বিভাগে প্রকাশিত মতামত লেখকের নিজস্ব। বাংলাদেশ নিউজ আওয়ার-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে প্রকাশিত মতামত সামঞ্জস্যপূর্ণ নাও হতে পারে।)