banglanewspaper

ডেস্ক রিপোর্ট: বিতর্কিত ধর্ম প্রচারক ডাঃ জাকির নায়েককে ভারতে ফেরাতে নারাজ মালয়েশিয়া। সন্ত্রাসে মদত দেওয়ায় অভিযুক্ত জাকিরের পাশে দাঁড়িয়েছেন খোদ মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মহম্মদ। এই অবস্থায় ভারতের পাশে দাঁড়িয়ে মালয়েশিয়া এবং চিনকে আক্রমণ করলেন বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

গত সপ্তাহে খবর ছড়ায় যে ভারতে ফিরছে জাকির নায়েক। যদিও সেই খবর ভিত্তি বলে উড়িয়ে দেয় বিতর্কিত ধর্ম প্রচারক। নিরাপদ এবং সুরক্ষিত মনে হলে নিজের মাতৃভূমিতে অবশ্যই ফিরবে বলে জানিয়েছিল ৫২ বছর বয়সী জাকির।

জাকির নায়েককে ভারতে পাঠানো হবে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন খোদ মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী তিনি জানান, জাকির মালয়েশিয়ায় আসার পর কোনও সমস্যা তৈরি হয়নি৷ তাই তাকে এদেশে স্থায়ী বসবাসের অনুমতি দেওয়া হয়েছে বলে শুক্রবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে জানান তিনি৷ এরপরেই শনিবার বিতর্কিত এই ধর্ম প্রচারকের সঙ্গে দেখা করেন মাহাথির মহম্মদ৷ স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমেও দুজনের একত্রে ছবি দেখা যায়৷

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মহম্মদ আরও জানান যে ভারতে ফিরলে চিনের উইঘুর মুসলিমদের মতো অবস্থা হবে জাকির নায়েকের। এই প্রসঙ্গে সরব হয়েছেন লজ্জার লেখিকা তসলিমা নাসরিন। রবিবার রাতের দিকে ট্যুইট করে তিনি লিখেছেন, “জাকির নায়েককে ভারতে পাঠানো হলে তা চিনের উইঘুর মুসলিমদের পাঠানোর সমতুল হবে বলে দাবি করেছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী।” কিন্তু বিষয়টা এক নয় বলে দাবি করেছেন তসলিমা। তিনি লিখেছেন, “ভারতে গণতন্ত্র আছে, চিনে নেই। ভারতে একজন অভিযুক্ত দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পরে জেলে যায়। চিনে তা হয় না, আইনি লড়াই ছাড়াই অনেককে জেলে পাঠানো যায় চিন দেশে।”

২০১৬ সালে ঢাকায় ভয়াবহ গুলশন জঙ্গি হামলার পরই বিতর্কিত ধর্মপ্রচারক জাকির নায়েককে নিষিদ্ধ করেছে বাংলাদেশ সরকার৷ হোলি আর্টিজান ক্যাফে হামলার পরই উঠে আসে, হামলাকারী জঙ্গিরা জাকির নায়েকের উত্তেজিত ভাষণে অনুপ্রাণিত হয়েই গণহত্যা চালিয়েছিল৷ তদন্তে উঠে আসে গুলশন হামলার ঠিক আগেই ভারত ছাড়ে জাকির নায়েক৷ গ্রেফতারি এড়াতে ভারত ছেড়ে তিনি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ মালয়েশিয়া চলে যায়৷ সেদেশের সরকার জাকিরকে স্থায়ীভাবে বসবাস করার অনুমতি দিয়েছে৷
 
পলাতক ধর্মীয় প্রচারক জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করে এনআইএ৷ ৫৮ পাতার এই চার্জশিটে বলা হয়,এই মুসলিম প্রচারকের উত্তেজিত ধর্মীয় ভাষণে বহু যুবক জঙ্গিবাদে আকৃষ্ট হয়েছে৷ মুম্বই নিবাসী জাকির নায়েক দেশছাড়া৷ তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্র বিরোধী ষড়যন্ত্রে জড়িত থাকার অভিযোগ এনেছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা৷