banglanewspaper

নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজধানীর পুরানা পল্টনের আবাসিক হোটেলের একটি কক্ষে এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তার নাম মামুন (২৪)। তার বাড়ি নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি এলাকায় বলে জানা গেছে।

এই ঘটনায় মামুনের আরেক বন্ধু জাবেদ অচেতন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

হোটেলের ম্যানেজার হাসান জানান, বুধবার সন্ধ্যায় মামুন ও তার বন্ধু জাবেদ তার হোটেল ওঠেন। তারা রাতে বায়তুল মোকাররক মসজিদের পাশের বিসমিল্লাহ হোটেলে মুরগির গ্রিল খেয়েছিল বলে জানতে পারি। রাতে আমাদের হোটেলের ৫০৫ নম্বার রুমেই ছিল।

আজ সকাল ৭টার দিকে জানতে পারি তার দুই বন্ধুর ভীষণ পেটে ব্যথা ও বমি হচ্ছে। পরে ৯৯৯ এ কল করে অ্যাম্বুলেন্স ডেকে ঢামেকে নেওয়া হয়। সেখানেই মামুনের মৃত্যু হয়। ধারণা করা হচ্ছে ওই হোটেলের খাবারের বিষক্রিয়া থেকে তারা অসুস্থ হয়েছিল।

নিহতের চাচাতো ভাই সোহাগ জানান, তারা দুই বন্ধু গতকালই নোয়াখালী থেকে ঢাকায় এসেছিল। শুনেছিল মামুনের ব্রাজিলে যাওয়ার কথা ছিল। তবে বিস্তারিত তিনি জানাতে পারেননি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, সকালে অচেতন অবস্থায় দুই যুবককে হাসপাতালে আনা হয়। পরে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দায়িত্বরত চিকিৎসক মামুনকে মৃত ঘোষণা করেন। তবে মৃত্যুর কারণ এখনও কিছু জানা যায়নি। ময়নাতদন্তের পর সঠিক কারণ জানা যাবে। মরদেহ মর্গে রাখা রয়েছে।