banglanewspaper

কৃষিক্ষেত্রে জ্ঞান ও কৃষক-সংগঠনের দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে দেশের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে খাদ্য ও কৃষি সংস্থা (এফএও) ২০ কোটি টাকার একটি প্রকল্পের উদ্বোধন করেছে। এই প্রকল্পের আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মধ্যে আর্থিক সহযোগিতা দেয়া হবে।


রবিবার রাজধানীর বার্ক অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত এক কর্মশালায় এই প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়।


কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী কর্মশালার উদ্বোধনী অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির এবং ‘মিসিং মিডিল ইনিশিয়েটিভ (এমএমআই)-এর আওতাধীন গ্লোবাল এগ্রিকালচার অ্যান্ড ফুড সিকিউরিটি প্রোগ্রামের (জিএএফএসপি) সিনিয়র এগ্রিকালচার ইকোনমিস্ট ড. ইফতিকার মোস্তফা এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।


এফএও-এর এই প্রকল্প প্রত্যেক কৃষক সংগঠনে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে মূল্য নির্ধারণ, বাজারজাতকরণ, প্রযুক্তি জ্ঞান, তথ্য ও আর্থিক বিষয়সমূহ নিশ্চিত করবে এবং বিভিন্ন পরীক্ষামূলক কার্যক্রম গ্রহণ করবে।


এফএও সূত্র জানায়, তিন বছর মেয়াদী এই প্রকল্প দক্ষিণাঞ্চলের বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল ও ঝালকাঠি এবং উত্তরাঞ্চলের রংপুর, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী ও লালমনিরহাট এই ৮টি জেলায় বাস্তবায়ন করা হবে।


কর্মশালায় মতিয়া চৌধুরী বলেন, জিএএফএসপি’র অর্থায়নে এই প্রকল্প উৎপাদন বৃদ্ধি এবং গ্রামাঞ্চলের দারিদ্র্য বিমোচনে সহায়তা করবে।


তিনি বলেন, এরআগে ২০১১ সালে জিএএফএসপি’র ৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের অর্থায়নে ইন্টিগ্রেটেড এগ্রিকালচারাল প্রোডাকটিভিটি প্রজেক্ট বাস্তবায়িত হয় এবং দেশের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলে কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি পায়।


বাংলাদেশ খাদ্যশস্যে তার চাহিদা মেটাতে দৃষ্টান্তমূলক অগ্রগতি করেছে উল্লেখ করে বাংলাদেশে এএফও’র প্রতিনিধি ডেভিড ডব্লিউ ডোওলান বলেন, দেশটি এখন কৃষির মাধ্যমে জীবনধারণ থেকে বাণিজ্যিক কৃষির দিকে ধাবিত হচ্ছে।


কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মাইনউদ্দিন আবদুল্লাহ’র সভাপতিত্বে অধিবেশনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের (ডিএই) অতিরিক্ত পরিচালক কাজী সাইফুল ইসলাম।