banglanewspaper

কোথাও নেটওয়ার্ক থাক না থাক এবারে চাঁদে টাওয়ার থাকবে। কোনও গালগপ্প নয়, এমন অসাধ্য সাধন হতে চলেছে ভারতের ভোডাফোন এবং নোকিয়ার যৌথ প্রচেষ্টায়। একেবারে ফোরজি  সার্ভিস পাওয়া যাবে চাঁদে, এমনটাই দাবি ব্রিটিশ টেলিকম কোম্পানি ভোডাফোন।

ভোডাফোনের এক মুখপাত্র সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ‘পঞ্চাশ বছর আগে চাঁদের মাটিতে পা রেখেছিল মানুষ। এবার সেই চাঁদেই আগামী বছর মোবাইলের ৪জি সার্ভিস চালু করে দেওয়া হবে। বার্লিনের সংস্থা পিটি সায়েন্টিস্ট ও অডির সঙ্গে ওই প্রকল্পে কাজ করছে ভোডাফোন।’

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে চাঁদে অভি‌যান করবে জার্মানির বেসরকারি সংস্থা পিটি সায়েন্টিস্ট। সংস্থার সিইও রবার্ট বোহমে সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন,‘বেসরকারিভাবে এটাই হবে প্রথম কোনও চন্দ্রাভিযান। আশা করছি আমাদের হাত ধরেই চাঁদে অভিযানে নতুন দিক খুলে যাবে। খরচ হবে ৫০ মিলিয়ন ডলার। ২০১৯ সালে আমাদের চন্দ্রযান উৎক্ষেপণ করা হবে কেপ ক্যানারভ্যাল থেকে।’

ভোডাফোনকে চাঁদে ৪জি নেটওয়ার্ক চালু করতে সাহা‌য্য করছে নোকিয়া। জনপ্রিয় এই মোবাইল প্রস্তুতকারী সংস্থা তৈরি করে দেবে এক কিলোগ্রামেরও কম ওজনের একটি গেজেট। ওই গেজেটে ৪জি নেটওয়ার্ক সংযুক্ত থাকবে। ওই নেটওয়ার্ক ব্যবহার করেই চাঁদের মাটি থেকে লাইভ ছবি ও ভিডিও পৃথিবীতে পাঠানো ‌যাবে বলে দাবি করা হচ্ছে।