banglanewspaper

মোবাইলে ইন্টারনেট গ্রাহকের অজান্তে ‘পে পার ইউজ’র বিল পাঁচ টাকার বেশি কাটা যাবে না বলে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

বিটিআরসির পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে গ্রাহকদের ‘বিল শক’ থেকে রক্ষা করার জন্য ‘পে পার ইউজ’ ৫ টাকার বেশি হবে না। তবে কোনো গ্রাহক ৫ টাকার বেশি লিমিট নিতে চাইলে তার কাছ থেকে এমএসএস বা ইউএসএসডির মাধ্যমে কনসেন্ট বা সম্মতি নিতে হবে, যাতে করে গ্রাহকের কাছ থেকে পরবর্তীতে কোনো অভিযোগ উত্থাপিত হলে অপারেটর বা গ্রাহকের দৃশ্যমান প্রমাণ উপস্থাপন করা সম্ভব হয়।

আগামী ১ মার্চ থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর করতে বলা হয়েছে।

মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহারে নির্দিষ্ট প্যাকেজ কেনার পাশাপাশি অনেকে ‘পে পার ইউজ’ অর্থাৎ যতটুকু ব্যবহার ততটুকু খরচের হিসেবে ব্যবহার করেন। প্যাকেজ শেষ হলেও ‘পে পার ইউজ’ কার্যকর হয়। এই হার ০.০১ টাকা/১০ কেবি (+ট্যাক্স) বা ০.০২ টাকা/১০ কেবি চার্জ করা হয়ে থাকে। তবে অপারেটর ভেদে অধিক পরিমাণ অর্থ কেটে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।
 
এ বিষয়টি নিয়ে ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত বিটিআরসির গণশুনানিতে গ্রাহকদের পক্ষ থেকে অনেক অভিযোগ এসেছিল। ওই সময়ে সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেয় বিটিআরসি।

বিটিআরসির জানায়, সেলফোন অপারেটরদের অতিরিক্ত প্যাকেজ থাকায় গ্রাহকদের বিভ্রান্তির বিষয়টি গণশুনানিতে তুলে ধরা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে প্যাকেজের সংখ্যাও কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন। সেলফোন অপারেটরদের প্যাকেজ ও অফার থাকবে সর্বোচ্চ ৩৫টি।