banglanewspaper

সাজেদুর রহমান টেন্টু, জ্যামাইকা: বীর মুক্তিযোদ্ধা ও কমান্ডার কুষ্টিয়ার কৃতি সন্তান মোঃ শাহ আলম গেরিলা ওরফে গেরিলা আলমের নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বাদ মাগরিব জ্যামাইকার স্থানীয় সময় ৫.৩০ মিঃ জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়।

জানাযা নামাজে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ দুতাবাসের কনসোলেট জেনারেল মোঃ শামীম আহসান ,মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ডাঃ আব্দুল বাতেন, মুক্তিযোদ্ধা মোঃ লাভলু, মুক্তিযোদ্ধা রাশেদ, বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ রুহুল আমিন সিদ্দিকি, কুষ্টিয়া জেলা সমিতি ইউএসএ ইনকের উপদেষ্টা মোঃ রাশেদুল আলম, উপদেষ্টা মুন্সী মুর্তজা আলী ,উপদেষ্টা আলতাফ হোসেন, উপদেষ্টা ইমদাদুল হক, সভাপতি মোঃ গিয়াস উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আসাদুজ্জামান, সহ সভাপতি মোঃ আবু তালেব, সহ সভাপতি মোঃ সাইদুর রহমান , আঃ রহমান, কোষাধ্যক্ষ মোঃ আলমগীর হোসেন, প্রচার সম্পাদক মুন্সী সাজেদুর রহমান টেন্টু সহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ ।

এছাড়া নিকটতম আত্মীয়দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ফয়সাল হাসান চপল, বস্টন থেকে ডাঃ সায়েদা সরকার, ডাঃ রেজাউল, টেক্সাস থেকে ইঞ্জিনিয়ার সামিউল ইসলাম, স্থানীয় প্রিন্ট ও ইলকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ ও জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের মুসল্লিগণ । জানাযা শেষে মরহুমের আত্নার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

জানাযা শেষে রাত ১১ টায় এমিরেট এয়ারলাইনসে লাশ পাঠানো হয় এবং বাংলাদেশ সময় ২রা ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সকাল ৮:৪০ মিঃ শাহজালাল আন্তজাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছাবে । সেখান থেকে লাশ গ্রহণ করবেন বড় মেয়ে জাকিয়া আক্তার। তারপর মিরপুর ১৪ ইব্রাহিম পুরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় জানাযা শেষে বনানী কবরস্থানে উনার স্ত্রীর কবরের পাশে তাঁকে দাফন করা হবে ।

উল্লেখ্য গত ২৮ সেপ্টেম্বরে জ্যাকসন হাইটস থেকে জামাইকা বাসায় ফেরার পথে হেট ক্রাইমের শিকার হয়ে গুরুতর ভাবে ঘাড়ে ও মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হোন। দীর্ঘদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার মঙ্গলবার তিনি মারা যান।